করোনাভাইরাস

১১৫ দিন আইসিইউয়ে থেকে সুস্থ হলেন প্রবাসী বাংলাদেশি

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ০৬ অক্টোবর ২০২০, ১০:২৭ এএম

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সংযুক্ত আরব আমিরাতের এক হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) ১১৫ দিন চিকিৎসাধীন থেকে সুস্থ হয়েছেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত  প্রবাসী বাংলাদেশি আবু তাহের ইসমাইল। 

চট্টগ্রামের বাসিন্দা ইসমাইল আবুধাবিতে একটি মেকানিক্যাল ওয়ার্কশপের মালিক।

দেশটিতে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ৫৫ বছর বয়সী ইসমাইলই জটিল সব রোগ নিয়েও দীর্ঘতম সময় হাসপাতালে থেকে সুস্থ হয়েছেন। গতকাল সোমবার (৫ অক্টোবর) গালফ নিউজ এখবর জানিয়েছে।

আবুধাবির লাইফ কেয়ার হাসপাতালের নেফ্রোলজিস্ট ডা. আবেদ পিল্লাই জানান, ইসমাইলের ডায়াবেটিস ও হাইপারটেনশন ছিল। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর তার কিডনিতেও জটিলতা তৈরি হয়। এই ধরনের রোগীদের মধ্যে ৭৫ থেকে ৯০ শতাংশই মারা যায়। তাই আজ তাকে উঠে দাঁড়াতে দেখে দারুণ লেগেছে। আমরা আশা করি সময়ের সাথে সাথে তিনি আরো সুস্থ হয়ে উঠবেন।

ইসমাইলের ছেলে আবু বকর সিদ্দিক জানান, অসুস্থ হওয়ার ১০ দিন পর বাবাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বাবা এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে খুব দুর্বল বোধ করছিলেন। ক্ষুধা ছিল না তার। পরে তীব্র শ্বাস প্রশ্বাসের সমস্যা শুরু হলে আমি তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাই।

লাইফ কেয়ার হাসপাতালের জরুরি মেডিসিন স্পেশালিস্ট ডা. কার্তিক চিন্নিয়াহ জানান, ইসমাইলকে হাসপাতালে আনার পর একটি পরীক্ষা করেই তৎক্ষণাৎ কৃত্রিম শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়। সে সময় তার জ্বর, কাশি ছিল ও অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৮০’র নিচে ছিল।

তিনি আরো বলেন, ইসমাইলকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী স্ট্যান্ডার্ড কভিড-১৯ থেরাপি দেয়া হয়। এর মধ্যে ১০ দিনের অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ ও স্টেম সেলের দুটি ডোজ আছে। এরপর আইসিইউতে প্রায় চার মাস রেখে চিকিত্সার পর ইসমাইলকে ৩১ আগস্ট হাসপাতাল থেকে তাকে ছাড়া হয়। 

তিনি নিজেই এখন খেতে ও হাঁটতে পারছেন বলে চিকিৎসকরা জানান। -ডেইলি স্টার

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

অনলাইন সম্পাদক: আরশাদ সিদ্দিকী | ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh