বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকায় বাংলাদেশি টিকা ব্যানকোভিড

দেশীয় প্রতিষ্ঠান গ্লোব বায়োটেকের করোনা ভ্যাকসিন ‘ব্যানকোভিড’কে স্বীকৃতি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। শনিবার (১৭ অক্টোবর) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়।

গত ১৫ অক্টোবর গ্লোবের তিনটি ভ্যাকসিনকে বিশ্বজুড়ে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে চলমান গবেষণাগুলোর তালিকায় অন্তুর্ভুক্ত করে বলে নিশ্চিত করেছে গ্লোব বায়োটেক। এরই মধ্যে তাদের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন ‘ব্যানকোভিড’ মানবদেহে ট্রায়ালের জন্য আইসিডিডিআরবি’র সঙ্গে সমঝোতা চুক্তি সই করেছে গ্লোববায়োটেক।

সরকারের ঔষধ প্রশাসনের অনুমোদন পাওয়ার পর শুরু হবে এই ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল।

করোনার ভ্যাকসিন সম্পর্কে  গ্লোব বায়োটেক এর সিইও ড. কাকন নাগ সম্প্রতি জানান, বর্তমানে সারাবিশ্বে করোনা আক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। এই সংক্রমণে ডি৬১৪জি ভ্যারিয়েন্টটি শতভাগ দায়ী বলে সাম্প্রতিক গবেষণায় উঠে এসেছে। বাংলাদেশ শিল্প ও বিজ্ঞান গবেষণা পরিষদও (বিসিএসআইআর) বাংলাদেশে সংক্রমণের জন্য ডি৬১৪জি ভ্যারিয়েন্টকে দায়ী বলে নিশ্চিত করেছে।

তিনি বলেন, ‘‘আমাদের নিজস্ব প্রযুক্তিতে উদ্ভাবিত ‘ব্যানকোভিড’ টিকাটি ডি৬১৪জি ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে প্রথম ও একমাত্র আবিষ্কৃত টিকা।’’ 

প্রসঙ্গত, গত ২ জুলাই গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড দেশে প্রথম ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা দেয়। সেদিন তারা জানায়, গত ৮ মার্চ তারা এই টিকা আবিষ্কারের কাজ শুরু করে এবং সব পর্যায়ের কাজ শেষ করতে পারলে আগামী ছয় থেকে সাত মাসের মধ্যে এই টিকা বাজারজাত করা যাবে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh