দ্বিতীয় মেয়াদে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা

নিউজিল্যান্ডের সাধারণ নির্বাচনে জয় পেয়েছে প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আর্ডেনের নেতৃত্বাধীন মধ্য বামপন্থী লেবার পার্টি। শনিবারের (১৭ অক্টোবর) ভোটগ্রহণ শেষে ঘোষিত ফলাফলে দেখা গেছে দেশটির ১২০ আসনের পার্লামেন্টে ৬৪টিতেই জয় পেয়েছেন লেবার পার্টির প্রার্থীরা। 

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, গত কয়েক দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো দেশটিতে একক দলের সরকার গঠন হতে যাচ্ছে।

করোনাভাইরাসের কারণে বিলম্বিত হয় এবারের নিউজিল্যান্ডের সাধারণ নির্বাচন। দীর্ঘ বিলম্বের পর শনিবার (১৭ অক্টোবর) স্থানীয় সময় সকাল ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত এই ভোটগ্রহণ চলে। মোট ১৭ জন প্রার্থীর অংশগ্রহণ থাকলেও মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয় আসলে ক্ষমতাসীন লেবার পার্টির নেতা জাসিন্ডা ও ন্যাশনাল পার্টি প্রধান জুডিথ কলিন্সের মধ্যে।

ভোটগ্রহণ শেষে ঘোষিত ফলাফলে দেখা গেছে ১৯৯৬ সালে নিউজিল্যান্ডে আনুপাতিক ভোট ব্যবস্থা চালুর পর থেকে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক আসন পাওয়া দলে পরিণত হয়েছে ৪০ বছর বয়সী জাসিন্ডার লেবার পার্টি। ফলে এবারই প্রথমবারের মতো একক দলের সরকার গঠন করতে পারবেন তিনি।

নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর অকল্যান্ডের নিজ বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসেন জাসিন্ডা আর্ডেন। সমবেত সমর্থকদের উদ্দেশে হাত নাড়ানোর পাশাপাশি অনেককে জড়িয়ে ধরেন তিনি।

অপরদিকে পরাজয় স্বীকার করে বিরোধী ন্যাশনাল পার্টির নেতা জুডিথ কলিন্স এক টেলিভিশন ভাষণে বলেন, প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আর্ডেনকে ফোন করে আমি অভিনন্দন জানিয়েছি, কারণ আমার বিশ্বাস এটা লেবার পার্টির অসামান্য ফলাফল।

নিউজিল্যান্ডের নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, ইতোমেধ্যে গণনা শেষ হওয়া ৭৭ শতাংশ ব্যালটের মধ্যে লেবার পার্টি পেয়েছে ৪৯ শতাংশ ভোট। অপর দিকে ন্যাশনাল পার্টি পেয়েছে ২৭ শতাংশ ভোট।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh