মুক্তির আনন্দ

উঁচু আম গাছটার ডালে শালিক পাখির বাসা। বাসায় শালিক পাখির তিনটি ছানা। ছানাগুলো সবে উড়তে শিখেছে। তবে একটানা বেশি দূর উড়ে যেতে পারে না। ছানাগুলোকে পেয়ে শালিক পাখি অনেক খুশি। 

সারা দিন ওদের চোখে চোখে রাখে। মা-পাখি খাবার আনতে গেলে বাবা-পাখি বাসায় থাকে। পাহারা দেয়। ছানাদের সাথে কথা বলে সময় কাটায়। একদিন মা ও বাবা-পাখি দুজনকেই খাবারের খোঁজে যেতে হলো। সেদিন আকাশে কালো মেঘ ছিল। হঠাৎ ঝড়ো হাওয়া বইতে শুরু করল। ছানা তিনটি ভীষণ ভয় পেয়ে গেল। হঠাৎ দমকা হাওয়ায় একটি ছানা নিচে পড়ে গেল। ছানাটি চিঁচিঁ করে মা বলে ডেকে উঠল। তার মা তো বাসায় ফেরেনি। তাহলে?

কী হবে এখন? ছানাটি কী করবে, কিছুই তার ভাবনায় আসছিল না। উড়ে বাসায় যাবে, সেটাও করতে পারছে না ছানাটি। এ পথে বাড়ি ফিরছিল ডানপিটে ডাবলু। এ গাঁয়েরই ছেলে। শালিক পাখির ছানাটিকে দেখতে পেল সে। তার মুখে হাসি ফুটে উঠল। পাখিটিকে দেখে ডাবলু বলল, ‘বাহ্! এ যে একটি শালিক ছানা। ছানাটিকে আমি পুষব।’ ছানাটিকে বাসায় নিয়ে এল ডাবলু।

বাসায় একটি খাঁচার মাঝে পুরে রাখল শালিক ছানাটিকে। ছেলেটির মা দেখে বলল, ‘পাখির ছানা কোথায় পেলি ডাবলু।’ মা, ছানাটি পথে পড়ে ছিল। এ ঝড়ের রাতে পথে পড়ে থাকলে তো ছানাটি মারা যাবে। তার চেয়ে তো ভালো মা এটাকে আমি পুষব। ‘ছানাটি তো অনেক ছোট বাবা। ওকে কি তুমি দেখে রাখতে পারবে?’ মা, তুমি ভেবো না? ছানাটি ভালো করে উড়তে পারে না। ভালো করে ওড়া শিখলে আমি ছেড়ে দেব ওকে। মা বললেন, ‘তাহলে ঠিক আছে।’

ডাবলু ছানাটির অনেক খেয়াল রাখে। তবে ছানাটির আর কোনো কিছুই ভালো লাগে না। বাবা, মা, ভাই, বোন পাখির কথা মনে পড়ে। তারা কি তার খোঁজ করছে! কতই না মন খারাপ করে বসে আছে সবাই। সে কি বাবা, মা, ভাই, বোন পাখির কাছে ফিরে যেতে পারবে? এসব ভেবে কিছুই ভালো লাগে না তার। ডাবলু ছানাটিকে খাবার এনে দেয়। ছানাটি ভালো করে সে খাবার খায় না। ডাবলু সবকিছুই খেয়াল করে। 

সে ছানাটির মনের ভাষা যেন বুঝতে পারে। সাতদিন পর ঝকঝকে রোদের এক সকাল। ডাবলু খাঁচার দুয়ার খুলে দিল। ছানাটিকে ধরে তার হাতে নিল। শোন পাখি, এখন তুই মনে হয় উড়তে পারবি। তোর বাসা কি ঠিক খুঁজে নিতে পারবি? এই তোকে ছেড়ে দিলাম আকাশে। তুই ভালো থাকিস।

শালিক ছানা ছাড়া পেয়ে কিছুটা উড়ে গিয়ে বসল ডালিম গাছের ডালে। ডানা ঝাপটাল। ডানা নেড়ে যেন সে তার খুশির কথা জানাল।

তারপর আবার উড়াল দিল। এখন সে ওড়া শিখে গেছে। খুঁজতে খুঁজতে একসময় বাবা-মাকে খুঁজে পেল। মা-পাখি বাবা-পাখি অনেক আদর করল। 

তাকে ফিরে পেয়ে ভাই ও বোন-পাখিও খুব খুশি হলো। আজ আকাশজুড়ে কত আলো। কত খুশি। সেই আলোয়, সেই খুশিতে শালিক ছানার মন নেচে উঠল। বারবার শালিক ছানাটি তার ছোট ছোট দুটি ডানা মেলে নাচতে লাগল।

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh