রোববার,  ১৮ আগস্ট ২০১৯  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ১৩ আগস্ট ২০১৯, ১৪:০৫:১৫

চামড়ার দরপতন: সিন্ডিকেট নাকি অন্তরালের খেলা

ডেস্ক রিপোর্ট
এবার কোরবানির পশুর চামড়ার দাম কম বলা চলে। যারা কোরবানি দিয়েছেন, তাঁরা যেমন চামড়ার দাম পাননি, তেমনি দাম পাচ্ছেন না মৌসুমি ব্যবসায়ীরাও।
সায়েন্স ল্যাবরেটরি এলাকায় কয়েকজন মৌসুমি ব্যবসায়ী অভিযোগ করে বলেন, আড়তদার ও ব্যবসায়ীর সিন্ডিকেট করে চামড়ার বাজার কমিয়ে দিয়েছেন। মৌসুমি ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চামড়া কেনেন আড়তদার ও ট্যানারি মালিকেরা। একপর্যায়ে সেখানে উত্তেজনাও তৈরি হয়।পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
ট্যানারি মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন বলছে, তারা চামড়া সংগ্রহ করবে আরো ১০ থেকে ১২ দিন পর। ওই সময় পর্যন্ত ব্যবসায়ীরা যদি চামড়া সংরক্ষণ করতে পারেন, তাহলে সরকার–নির্ধারিত দামে চামড়া বিক্রি করতে পারবেন।
অন্যদিকে ট্যানারি মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি শাহীন আহমেদ বলেন, ‘আমরা চামড়া কেনা শুরু করব আরো কয়েক দিন পর। এখন দরপতনের সঙ্গে আমাদের যুক্ত করার বিষয়টি আশ্চর্যের। আমার মনে হয় গুজব ছড়িয়ে কেউ কেউ ফায়দা লোটার চেষ্টা করছে। সস্তায় চামড়া কিনতে গিয়ে অনেকে বিভ্রান্ত হন। আশঙ্কা আর আতঙ্কে লোকসান দিয়ে চামড়া বিক্রি করে দেন।’
মৌসুমি ব্যবসায়ীরা লোকসান থেকে কীভাবে বের হতে পারেন এ বিষয়ে তাঁর পরামর্শ জানতে চাইলে শাহীন আহমেদ বলেন, ‘এখন যদি তাঁরা পর্যাপ্ত লবণ দিয়ে চামড়াগুলো সংরক্ষণ করেন, তাহলে আমাদের কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত দাম পাবেন। এখন হুজুগে পড়ে চামড়া যদি বিক্রি করে দেন, তাহলে আমাদের কী করার আছে।’
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com