বাংলা ভাষাকে অবমাননা: বিব্রত কবীর সুমন

কবীর সুমন।

কবীর সুমন।

উপমহাদেশের প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী কবীর সুমন বাংলাকে প্রাণে ধারণ করেন। একজন খাঁটি বাঙালি হিসেবে গর্ববোধ করেন। এ যুগের ‘রবীন্দ্রনাথ’খ্যাত সেই কবীর সুমনকে ‘বাংলা’ নিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়তে হলো।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। এমন একটি দিনের আগে লজ্জাজনক ঘটনা ঘটলো গুণী এই সংগীতশিল্পীর সঙ্গে। আর সেই আক্ষেপ তিনি প্রকাশ করলেন সামাজিক যোগাযোগামাধ্যমের এক ভিডিও বার্তায়।

সেখানে তিনি বলেন, বন্ধুরা-আমি কবীর সুমন। আমি ‘ব্লগ’ করতে ভালোবাসি না। আবার করছি। করতে বাধ্য হচ্ছি। একটু আগেই একটা টেলিফোন এসেছিলো আমার কাছে। একটি এফএম চ্যানেল থেকে বলা হলো, একটা বিতর্কে অংশ নিতে। বিতর্ক এই রকম-‘বাংলা ভালো ভাষাও নয়, ভালোবাসাও নয়’।

কবির সুমন বলেন, আজ ২০ ফেব্রুয়ারি। কাল ২১। আমরা রয়েছি কলকাতায়, যা বাংলা সংস্কৃতির প্রাণকেন্দ্র। আমাকে বলা হল,  প্লিজ আপনি বলুন ‘বাংলা ভালো ভাষাও নয়, ভালোবাসাও নয়’,  তারকারা সবাই মত দিচ্ছেন। 

কবির সুমনের দুঃখটা এখানেই বেশি। তাই খানিকটা ক্ষোভ নিয়েই বললেন, এই তারকারা নিশ্চয়ই তামিল বা তেলুগু নয়। কাশ্মীরের নয়। তারা বাঙালি। আমি হাসবো না কাঁদবো!

জানতে চাইলাম, আমার মতো প্রবীণ নাগরিককে এটা জিজ্ঞেস করতে খারাপ লাগছে না? ছেলেটি হার মানছে না। বলছে, তারকারা সব মত দিচ্ছেন!

আর আমি রেওয়াজ করে যাচ্ছি। কাল ২১ ফেব্রুয়ারি এক সমিতির ডাকে আমি বাংলা খেয়াল গাইতে যাবো।

তা হলে কী হেরে গেলাম আমরা? আমরা হেরে গেলাম? অনেক দিন আগে অর্থাৎ ১৯৭৬ সালে জার্মানিতে শহিদ কাদরির সঙ্গে আলাপ হয়েছিলো আমার। তিনি বলেছিলেন, সুমন, সাংস্কৃতিক লড়াইয়ে আপনারা জিতে গেছেন।

আমি তাকে বলেছিলাম, বোধহয় নয়... বোধহয় নয়...। শহিদ বেঁচে গেছেন। তাকে এ প্রশ্ন শুনতে হলো না। আমি বেঁচে আছি। আজও বাংলায় বাহার রাগে খেয়াল রচনা করছি...

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা। 

মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh