রোববার,  ২৫ আগস্ট ২০১৯  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৯, ১৪:০৮:৪৭

নান্দনিক খাবার টেবিল

ডেস্ক রিপোর্ট
খাবার ঘরের প্রাণকেন্দ্র হলো খাবার টেবিল। প্রচণ্ড ক্ষুধা পেলে খাবার টেবিলের সাজের চেয়েও মুখ্য হয়ে ওঠে ভুরিভোজ। কিন্তু উৎসব অনুষ্ঠানে বাড়িতে অতিথি এলে তখন আপ্যায়নের ত্রুটি করা যায় না। তাই খাবার টেবিলের সাজসজ্জা খুব দরকার। তাছাড়া প্রবাদে আছে, ‘আগে দর্শনধারী, পরে গুণবিচারী’। খাবার কত সুস্বাদু হয়েছে তার চেয়েও মুখ্য বিষয় খাবার টেবিলের সাজসজ্জা কত সুন্দর। খাবার টেবিলের সাজসজ্জা টেবিলের ধরন অনুযায়ী হলে ভালো হয়। টেবিলের ধরন ও আকৃতি অনুযায়ী রানার, ম্যাট, চামচ হোল্ডার, টিস্যু হোল্ডার, ফুলদানি রাখা যেতে পারে।
গোলাকৃতি, ষড়ভূজাকৃতির, আয়তাকার ইত্যাদি বিভিন্ন আকৃতির খাবার টেবিল বাজারে পাওয়া যায়। যেকোনো আকৃতির খাবার টেবিলকে সুন্দর ও নান্দনিক করতে নিম্নোক্ত বিষয়গুলো বিবেচনা করতে পারেন:
 
টেবিল ক্লথ
খাবার টেবিলের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য আকর্ষণীয় ও রুচিশীল টেবিল ক্লথ নির্বাচন করতে হবে। বাজারে পিছ বা গজ আকারে টেবিল ক্লথ পাওয়া যায়। অনেক ক্লথে ফুল, পাখিসহ বিভিন্ন নকশা আঁকা থাকে। টেবিলের উপর বিছানোর জন্য সুতি কাপড় বাজারে অহরহ রয়েছে সেখান থেকে আপনার পছন্দ অনুযায়ী কাপড় বেছে নিতে পারবেন। আপনার বাসায় যদি ছোট বাচ্চা থাকে তাহলে ফল আঁকা টেবিল ক্লথ কিনতে পারেন। যেহেতু এখন বর্ষাকাল সেহেতু নীল, আকাশি রঙের কিংবা সাদা রঙের টেবিল ক্লথ বেছে নিতে পারেন।
 
ন্যাপকিন
খাবার টেবিলের জন্য ন্যাপকিন বেছে নিতে হবে উদ্দেশ্য অনুযায়ী। টেবিলের ম্যাটের সঙ্গে মিলিয়ে ন্যাপকিন নির্বাচন করতে পারেন। চাইলে প্রতিজনের জন্য আলাদা আলাদা ন্যাপকিন বরাদ্দ করতে পারেন। রাতের খাবারের জন্য ২২ ইঞ্চি, দুপুরের জন্য ২০ ইঞ্চি, সকালের নাস্তার  জন্য ১৮-২০ ইঞ্চি ন্যাপকিন কিনতে পারেন।
 
টেবিল ম্যাট
বাজারে বিভিন্ন ধরনের ম্যাট যেমন প্লাস্টিক, বাঁশ, রাবার, ফাইবার, কাপড় ও পাটের ছোট, মাঝারি, বড় বিভিন্ন ধরনের ম্যাট পাওয়া যায়। ম্যাটগুলো গোল, চারকোণা আকৃতির, ত্রিকোণাকৃতির এমনকি ডিম্বাকৃতির হয়ে থাকে। উৎসবে টেবিল ম্যাট পরিবর্তন করে অতিথিদের তাক লাগিয়ে দিতে পারেন। টেবিল ম্যাট পরিবর্তন করে রাজকীয় ভাব নিয়ে আসতে পারেন। এই ম্যাটগুলো বাজারে সেট হিসেবে বিক্রি হয়। আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী সেরাটি বেছে নিতে পারেন।
 
ফলের ঝুড়ি
খাবার টেবিলের সৌন্দর্য বাড়ায় ফলের ঝুড়ি। তবে ফলের ঝুড়ি নির্বাচনের ক্ষেত্রে টেবিলের আকারের দিকটি বিবেচনায় রাখতে হবে। ডিম্বাকৃতির টেবিল হলে চামচস্ট্যান্ড, ফলের ঝুড়ি, মোমদানি গুচ্ছ করে রাখলে সৌন্দর্য ফুটে উঠবে। টেবিল আয়তাকার হলে সারিবদ্ধ করে রাখা যেতে পারে।
 
গ্লাস স্ট্যান্ড
বাজারে স্টিলের, কাঠের গ্লাসস্ট্যান্ড পাওয়া যায়। কাঠের স্ট্যান্ডগুলো বিভিন্ন রঙের হয়। কোন স্ট্যান্ডে ৬টি আবার কোনো স্ট্যান্ডে ১২টি গ্লাস রাখা যায়। গ্লাসস্ট্যান্ড শুধু টেবিলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে না এটি প্রয়োজনীয় বটে।
 
চামচ স্ট্যান্ড
চামচের সাথেই চামচ স্ট্যান্ড পাওয়া যায়। কোনো কোনো চামচ স্ট্যান্ডে শুধু চামচ রাখা যায় আবার কোনো কোনো চামচ স্ট্যান্ডে ছুরিসহ চামচ রাখা যায়।
 
প্লেট স্ট্যান্ড
টেবিলের একপাশে মনের মতো সাজিয়ে প্লেট স্ট্যান্ডে প্লেট রাখা যায়। তাই মনের মতো প্লেট স্ট্যান্ড কিনে নিন। পুরনো প্লেট স্ট্যান্ড সরিয়ে নতুন একটি বেছে নিতে পারেন। প্লেট স্ট্যান্ড স্টিল, কাঠ বা প্লাস্টিকের হয়ে থাকে।
 
রানার
খাবার টেবিলের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে ব্যবহার করতে পারেন রানার। রানার কাপড়, পাট ও রাবারের হয়ে থাকে। এছাড়া লাল, নীল, সবুজ ও হলুদ রঙের বিভিন্ন নকশা করা রানার বাজারে পাওয়া যায়।
 
সুগন্ধি মোম
খাবার টেবিলে গ্লাস স্ট্যান্ড, প্লেট স্ট্যান্ড, চামচ স্ট্যান্ড রাখার পাশাপাশি কিছু সুগন্ধি মোমও রাখতে পারেন যা আপনার খাবার টেবিলকে বাড়তি সৌন্দর্য প্রদান করবে। সৌন্দর্য বৃদ্ধির পাশাপাশি মোমগুলো কাজেও আসতে পারে। তাছাড়া এর মাধ্যমে অতিথিদের কাছ থেকে আপনি প্রশংসা কুঁড়াতে পারবেন।
 
ফুলদানি
খাবার টেবিলের মাঝখানে একটি ফুলদানি টেবিলের সৌন্দর্য দ্বিগুণ বাড়িয়ে দেয়। সেই সঙ্গে তাজা ফুল বিমোহিত করবে অতিথিদের। ফুলের সুঘ্রাণে মুগ্ধ হবে সবাই। পেট ভরার পাশাপাশি মনও ভরবে। তাই টেবিলের আকার অনুযায়ী ফুলদানি রাখতে পারেন।
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com