বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের অবসরভাতা তোলার জরুরি ব্যবস্থা নিন

বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা শিক্ষক-কর্মচারীরা কাগজপত্র জমা দেওয়ার তিন-চার বছর পরে তাদের অবসরভাতা তুলতে পারেন। যাদের কোনো এলপিআর নেই, যা পাবেন একবারই পাবেন। এ অবস্থায় অবসরপ্রাপ্ত বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের পরিবারের অন্য সদস্যের ওপর গলগ্রহ হয়ে থাকতে হয়। 

আজকে যারা অবসরভাতা তোলার ফাঁদে পড়েছেন, তারাই এক সময় তিন মাস পর পর চার মাসের মাঝামাঝি গিয়ে তাদের অনুদান পেতেন। একবার চিন্তা করে দেখুন- ঈদ, পূজা, বড়োদিন এবং অন্যান্য অনুষ্ঠান-উৎসবে তারা কতোটা মর্যাদাশূন্য অবস্থায় থাকেন। 

অবসরপ্রাপ্তদের ২০১৬-২০১৭ সালের কাজ চলছে। ফান্ডে টাকা নেই ইত্যাদি কত কথা। এখন কোথায় যাব? শুনি হজব্রত পালনে কিছু টাকা দেওয়া হয়। হজের সাধ্য-সামর্থ্য আর অর্থনৈতিক সুযোগ কি সবার থাকে? কিছুদিন আগে পত্রিকায় দেখেছিলাম, দুদক ঢুকেছেন অবসরভাতা কল্যাণ ট্রাস্টের অফিসে। খুব আশায় বুক বেঁধেছিলাম। সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আমাদের করজোর আবেদন- দয়া করে আমাদের অবসরভাতার টাকা তোলার একটা জরুরি ব্যবস্থা নিন।

সামসুর রহমান, ঢাকা।

মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh