বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের সম্পর্ক পরিবারের মতো: আকরাম খান

আকরাম খান।

আকরাম খান।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক এবং জাতীয় দলের সাবেক ক্যাপ্টেন। তিনি একই সঙ্গে ক্রিকেট পরিচালনা বোর্ডেরও চেয়ারম্যান। বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের সম্পর্ক এবং বাংলাদেশ ক্রিকেটের সাম্প্রতিক ঘটনাবলি নিয়ে তিনি কথা বলেছেন ইফতেখার আলম ফরহাদের সঙ্গে

ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের সম্পর্ক কী? বোর্ডের দায়িত্ব কী?
আকরাম খান: এটা আসলে একটি পরিবারের মতো। পরিবারে যেরকম হয় সেরকমই। একটা কোড অব কন্ডাক্ট আছে বোর্ডের। কোনটা করা যাবে। কোনটা করা যাবে না। এটার মাধ্যমে দুই পক্ষই কাজ করে। বোর্ডের আরও অনেক দায়িত্ব আছে। এখন আপনারা যেমন সাকিবকে চেনেন। ক্রিকেট নিয়ে ভাবেন। এখন অনেকেই খেলছেন ন্যাশনাল টিমে। তার আগে ধরেন সাত-আট বছর বোর্ড ওদের তৈরি করেছে। নার্সিং করেছে। বোর্ডের প্রচেষ্টা তো অনেক বেশি থাকে। বোর্ডের এখন নিয়ম হলো মিডিয়াতে কোনো নেগেটিভ কথা বলা যায় না। করপোরেটে যা হয়। বোর্ড এখন সেরকমই।

বোর্ড কি তাহলে ক্রিকেটারদের মনিটরিং অর্গানাইজেশন?
আকরাম খান: হ্যাঁ, বোর্ড ক্রিকেটের জন্য সব করে।

ফ্যামিলির মতো হলে তার চুক্তি, খেলা সবই কি বোর্ড নিয়ন্ত্রণ করে?
আকরাম খান: হ্যাঁ, সবকিছুই নিয়ন্ত্রণ করে। বিদেশে কে কোথায় খেলছে বোর্ডকে জানানো হয়। প্লেয়াররাও জানায়। ফ্রাঞ্চাইজি সব কিছুই বোর্ডের জানার বাইরে হয় না। ক্রিকেটারদের বেতন, ম্যাচ ফি সবই বোর্ড ঠিক করে।

এখন বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের সম্পর্ক কেমন? আপনি কীভাবে দেখেন?
আকরাম খান: এখন ভালো। মাঝখানে একটা ভুল হয়েছিল। ভুল বোঝাবুঝি হয়েছিল। সেটাতো এখন ভালো হয়ে গেছে। ঠিক হয়ে গেছে।

আপনি ক্রিকেটারদের ধর্মঘটের কথা বলছেন? ক্রিকেটারদের দাবি ধর্মঘট ছাড়া মেটানোর সুযোগ ছিল কিনা?
আকরাম খান: হ্যাঁ, যে দাবিগুলো করা হয়েছে তার কিন্তু ৫০ ভাগ কাজ আমরা তার আগেই করে ফেলেছিলাম। ওদের উচিত ছিল ওরা আমাদের কাছে এসে ব্যাপারটা বলত। তারপর আমরা না মানলে তারা যেভাবে দাবি করা হয় সাধারণভাবে সেভাবে করতে পারত। সেই দাবিটা ভালো হতো।

এই ধরনের ঘটনা বোর্ডের সঙ্গে ক্রিকেটারদের সম্পর্ক ও পারফরমেন্সে প্রভাব ফেলে কিনা?
আকরাম খান: অবশ্যই এরকম তো ভুল বোঝাবুঝি হয়। প্রভাব ফেলে। কিন্তু এবার তো আমাদের বোর্ড প্রেসিডেন্ট খুব সুন্দরভাবে এটা মিমাংসা করলেন। এক মিটিংয়ে সব কিছু শেষ হয়ে গেছে। এখানে আমার মনে হয় না আর কোনো মনোমালিন্য থাকবেনা।

সাকিবের ক্ষেত্রেওতো একটা ঘটনা ঘটল। এটা বোর্ড কীভাবে কাটাবে?
আকরাম খান: আপনারা নিউজটাতো পড়েছেন, পড়েন নাই? তাহলে বোর্ড কী করবে? ওখানে আকসু হলো আইসিসির একটা বডি। যারা ম্যাচ ফিক্সিং বা এগুলোতে জড়িত থাকে তাদের নিয়ে কাজ করে। এখানে আইসিসি ছাড়া বোর্ড কিছু করতে পারবে না।

ভবিষ্যতে ক্রিকেটারদের জন্য এখন বোর্ডের কি করণীয়?
আকরাম খান: আমরা যখন বয়সভিত্তিক ১৪ ও ১৫ টিম গঠন করি তখন থেকেই আমরা এই শিক্ষটা দেই। কোনটা ভালো, কোনটা খারাপ, কোনটা আইসিসিতে ব্যান্ড, কোনটা ব্যান্ড না, কোন ওষুধ খেতে পারবে, কোনটা পারবে না- এর সব ক্লাস আমরা করাই।


মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh