করোনার নতুন লক্ষণ স্বাদ-গন্ধ না পাওয়া

শুরুতে করোনার উপসর্গ ছিলো জ্বর, সর্দি-কাশি ও মাথাব্যাথা। এর পরে এর সাথে অবসাদ ও ডায়রিয়ার মতো উপসর্গ যোগ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে এক গবেষণায় চীন, জার্মানি, ইতালি ও দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনা আক্রান্ত অনেকের মধ্যেই দেখা গেছে, স্বাদ-গন্ধহীনতার উপসর্গ। 

লন্ডনের কিংস কলেজের তৈরি করোনা রোগী চিহ্নিতের অ্যাপে দেখা গেছে, ভাইরাসে আক্রান্ত ৫৯ ভাগ বলছেন তারা স্বাদ ও গন্ধ পাচ্ছে না।

স্বাদ ও গন্ধ না পাওয়ার সমস্যাকে চিকিৎসাবিজ্ঞানের ভাষায় বলে অ্যানোসমিয়া। করোনার উপসর্গগুলোর মধ্যে এটিও অন্তর্ভুক্ত। 

তবে উপসর্গ হিসেবে একে দেরিতে চিহ্নিত করায় কয়েক হাজার কভিড-১৯ রোগীদের এখনো শনাক্ত করা হয়নি বলে আশঙ্কা ব্রিটিশ বিশেষজ্ঞদের। আর এমন উপসর্গ দেখা দিলে ৭ দিনের জন্য আইসোলেশনে যাওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন তারা।

লন্ডনের কিংস কলেজের অধ্যাপক টিম স্পেক্টর জানান, এমন উপগর্সগুকে গুরুত্ব না দেয়ায় কয়েক লাখ করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির নাম তালিকাভুক্ত হয়নি। যার ফলে তারা আরো অনেককে সংক্রমিত করেছে আর এতে বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। সঠিক সময়ে বিষয়টি আমলে না নেয়ার মাশুল গুনছি আমরা।

এদিকে, হঠাৎ স্বাদ-গন্ধ কমে যাওয়া কোভিডের উপসর্গ হতে পারে বলে মার্চ মাসে জানিয়েছিলেন ব্রিটিশ নাক-কান-গলা বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ক্লেয়ার হপকিন্স। আর তার মতে, ৪০ বছরের কম বয়সীদের ক্ষেত্রে এই উপসর্গ বেশি দেখা যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি স্বাদ-গন্ধ না পাওয়াকে করোনার উপসর্গ হিসেবে তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাজ্য।


মন্তব্য করুন

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

© 2020 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh