কারপাল টানেল সিন্ড্রোম কেন হয়? কারণ ও লক্ষণ

হাতের তালুকে কারপাল টানেল বলা হয়। কারপাল টানেল সিন্ড্রোম হলো কব্জির প্রদাহজনিত রোগ। এই রোগে হাতের কব্জি, হাতের তালু ও আঙুল অসাড় হয়ে যায়। কখনো কখনো ব্যথা করে,ঝিনঝিন করে, বা ফুলে যায়। 

এই রোগ এক হাতে বা উভয় হাতেই হতে পারে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এটি সময়ের সাথে সাথে খারাপ দিকে যায় এবং স্নায়ুর ক্ষতি করে। মেয়েদের মধ্যে এই সমস্যার প্রবণতা বেশি দেখা দেয়। বিশেষ করে, গর্ভাবস্থায় প্রায়ই এই সমস্যা প্রকট হয়। 

কারণ

ক. উচ্চ রক্তচাপ 

খ. থাইরয়েডের সমস্যা 

গ. ডায়াবেটিস 

ঘ. কব্জিতে সমস্যা 

ঙ. অটোইমিউন ডিসঅর্ডারস (আর্থ্রাইটিস) 

চ. কী বোর্ড বা মাউস ব্যবহার করার সময় কব্জি বিশৃঙ্খল ভাবে রাখা 

ছ. দীর্ঘ সময় ধরে একই কাজ বার বার করা  

ঝ. চাপ দিয়ে কাজ করা। 

লক্ষণ

ক) হাতে ব্যথা অনুভব করা 

খ) হাতের আঙুলে অসাড়তা ও ব্যথা 

গ) হাতের পেশিতে দুর্বলতা। 

সিনড্রোমের ঝুঁকি 

ক. মহিলাদের এই সিনড্রোম হওয়ার সম্ভাবনা পুরুষদের তুলনায় তিনগুণ বেশি থাকে।  

খ. এই অবস্থাটি সাধারণত ৩০ থেকে ৬০ বছর বয়সের মধ্যে দেখা যায়। 

গ. বিভিন্ন অভ্যাস যেমন বেশি লবণ গ্রহণ, ধূমপান, হাই বডি মাস ইনডেক্স (BMI) কারপাল টানেল সিনড্রোমের ঝুঁকি বাড়িয়ে তুলতে পারে। 

চিকিৎসা 

এই রোগের উপশমের জন্য শল্যচিকিৎসা ও ফিজিওথেরাপি করা হয়। চিকিৎসার কয়েকটি বিকল্প হলো:  

ক. স্টেরয়েড 

খ. ফিজিওথেরাপি 

গ. অকুপেশনাল থেরাপি 

ঘ.  শরীরচর্চা 

ঙ. আল্ট্রাসাউন্ড থেরাপি। 

মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh