শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা

বশেমুরবিপ্রবির লোগো

বশেমুরবিপ্রবির লোগো

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি) আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া শনিবার সকাল ১০টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। 

শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ নুরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশে বন্ধের বিষয়টি বলা হয়। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভূত পরিস্থিতি এড়াতে আগামীকাল রবিবার থেকে ৩ অক্টোবর ২০১৯ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা ও ছাত্রদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শনিবার ভোর থেকে আন্দোলন তীব্র গতিতে চলছে। শিক্ষার্থীরা তাদের দাবি না মানা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবার কথা বলেছেন।

এর আগে বশেমুরবিপ্রবির উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শুক্রবার টানা দ্বিতীয় দিনের মতো শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেছে। তারা রাত ৯টার দিকে বিক্ষোভে মোমবাতি জ্বালিয়ে শপথ বাক‌্য পাঠ করেন।

গত ১১ সেপ্টেম্বর ফেইসবুকে স্ট্যাটাসের কারণে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ফাতেমা তুজ জিনিয়াকে সাময়িক বহিষ্কার এবং দীর্ঘদিন ধরে চলে আসা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের স্বৈরাচারী শাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা। এছাড়া দুর্নীতি, ভর্তি বাণিজ্য, বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল নির্মাণের আড়াই কোটি টাকা আত্মসাৎ, নারী কেলেঙ্কারিরও অভিযোগ রয়েছে উপাচার্য প্রফেসর ড.খন্দকার নাসিরুদ্দিনের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার দিনভর আন্দোলনের পর রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে মোমবাতি জ্বালিয়ে মৌন মিছিল বের করে শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার চত্বরে এসে শেষ হয়। এ সময় তারা অঙ্গীকার করেন আন্দোলন সফল না হওয়া পর্যন্ত বিক্ষোভ অব্যাহত রাখবেন।


মন্তব্য করুন

সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার

© 2019 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh