সোমবার,  ১৯ আগস্ট ২০১৯  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৯, ১৯:৪৬:০০

সাপে কাটলে কী করবেন, কী করবেন না

তথ্য ভান্ডার ডেস্ক
সারা বছর সাপকে পানিতে দেখা গেলেও বর্ষাকালে সাপকে দেখা যায় ডাঙায়। বন্যার সময় ঠান্ডা বাতাসের জন্য সাপ বেশি বিচরণ করে এবং এই সময় মানুষ বেশি দংশিত হয়। সাপে কাটলে প্রাথমিক চিকিৎসা স্বরুপ কিছু করণীয় কাজ মেনে চললে ভয়ানক কোনো ক্ষতি হবে না। তাই সাপে কাটলে প্রথমেই কি করতে হবে এবং কি করা থেকে বিরত থাকতে হবে তা জানতে হবে।
সাপে কাটলে যা করবেন 
আক্রান্ত ব্যক্তিকে সাহস দিতে হবে। অধিকাংশরা মনে করেন সাপের দংশনে মানুষ মারা যায়। নেতিবাচক চিন্তা বাদ দিয়ে দ্রুত নকটস্থ হাসপাতালে বা চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যেতে হবে।
দংশিত স্থান কাটাছেড়া না করে ভেজা ও জীবাণুমুক্ত কাপড় দিয়ে ক্ষতস্থান মুছে দিতে হবে। 
যে স্থানে সাপে কাটে সে স্থানের কিছুটা উপরে গামছা বা কাপড় দিয়ে শক্ত করে গিঁট দিতে হবে যেন ঢিলেঢালা হয়ে খুলে না যায়। 
সাপে কাটার স্থান বেশি নড়াচড়া করা যাবে না। এতে সারা শরীরে বিষ ছড়িয়ে যেতে পারে। 
সাপে কামড়ানো স্থানে চামড়ার রঙের পরিবর্তন, ফুলে যাওয়া, ফোসকা পড়া, কালচে হওয়া, পচন ধরা ইত্যাদি হতে পারে। আবার কোনো পরিবর্তন নাও থাকতে পারে। প্রাথমিক চিকিৎসার ফলেও স্থানীয় পরিবর্তন হতে পারে।
রোগীকে একপাশ করে শুইয়ে রাখুন বা কাত করে রাখুন।
রোগীর যদি শ্বাস-প্রশ্বাস না থাকে, তাহলে মৌখিক বায়ু ঢোকার নল ব্যবহার করুন এবং প্রয়োজন হলে কৃত্রিম শ্বাস প্রশ্বাস সঞ্চালন করুন।
যদি সম্ভব হয় তাহলে সাপটি দেখতে কেমন তা লক্ষ্য করুন। সাপের বর্ণনা পরবর্তীকালে চিকিৎসককে চিকিৎসা প্রদানে সাহায্য করতে পারে। আর যদি সাপটিকে মেরে ফেলা হয় তবে মৃত সাপটিকে সঙ্গে নিয়ে চিকিৎসককে দেখাতে পারেন। তবে মৃত সাপ ধরার আগে সাবধান, সাপ কিন্তু মৃতের মতো অভিনয় করতে পারে। তাই সাপটির মৃত্যু সম্পর্কে নিশ্চিত না হয়ে কাছে যাবেন না। তবে এসব করতে গিয়ে যেন অধিক সময় নষ্ট না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
সাপে কাটলে যা করবেন না 
ব্যথা উপশমের জন্য কোনো অ্যাসপিরিন দেওয়া যাবে না।
রোগীকে হাসপাতালে নেওয়ার পর রোগীর কথা বলতে অসুবিধা হলে কিংবা মুখ থেকে লালা ঝরলে তাকে কোনো কিছু খেতে দেওয়া যাবে না।
দংশিত স্থানে গিট দেওয়া যাবে না। এমনকি দংশিত স্থানে কোনো প্রকার মলম, হারবাল ওষুধ কিংবা প্রলেপ লাগানো যাবে না।
কান অথবা চোখের ভেতর কোনো কিছু ঢেলে দেওয়া যাবে না। 
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com