রোববার,  ২৫ আগস্ট ২০১৯  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ১০ আগস্ট ২০১৯, ১৩:০৬:২৭

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে থেমে থেমে চলছে গাড়ি

প্রতিনিধি, টাঙ্গাইল
ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব এলাকা থেকে করটিয়া পর্যন্ত ৪০ কিলোমিটার রাস্তায় যানবাহন চলছে থেমে থেমে। এর ফলে গোড়াই, মির্জাপুর, পাকুল্যা, করটিয়া বাইপাস, নগর জালফৈ, রাবনা বাইপাস, পৌংলি, এলেঙ্গা ও বঙ্গবন্ধুসেতু পূর্বপার এলাকায় মাঝে মাঝেই যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। 
এতে করে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ঈদযাত্রায় ঘরমুখো মানুষকে। আজ শনিবার সকালে এমন চিত্র দেখা যায়। টাঙ্গাইল পার হতেই পাঁচ-ছয় ঘণ্টা লেগে যাচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন যাত্রীরা।
বর্তমানে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে স্বাভাবিক যানবাহন চলাচলে চেয়ে দুই থেকে তিনগুণ বেশি যানবাহন চলাচল করছে। তাছাড়া পশুবাহী ট্রাক এবং যাত্রীবাহী বিভিন্ন গাড়ি বিভিন্নস্থানে বিকল হয়ে ১৫-২০ মিনিট সড়কের উপরে অবস্থান করলেই দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। 
সরেজমিনে দেখা যায়, শুক্রবার রাত থেকেই উত্তরের পথে গাড়িগুলো থেমে থেমে চলাচল করছে। সড়কের চন্দ্রা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতু পর্যন্ত একই চিত্র। 
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সিরাজগঞ্জ দিয়ে গাড়ি ঠিকমতো পার হতে না পারার কারণে টাঙ্গাইলে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। কিন্তু কী কারণে সিরাজগঞ্জ দিয়ে গাড়ি যেতে পারছে না সে বিষয়টি সংশ্লিষ্টরা সঠিকভাবে বলতে পারেনি। 
এদিকে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে স্বাভাবিক গতিতে যানবাহন চলাচলে সাত শতাধিক পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে। চন্দ্রা থেকে এলেঙ্গা পর্যন্ত চারলেন বঙ্গবন্ধুসেতু এলাকায় দুইলেনে প্রবেশ করায় অতিরিক্ত গাড়ির চাপে মাঝে মধ্যেই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। 
এছাড়া বঙ্গবন্ধু সেতু টোল প্লাজায় অতিরিক্ত গাড়ির চাপের কারণে টোল আদায় করতে সময় লাগায় দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। 
যানজটে আটকে থাকা যাত্রীরা জানান, ঢাকা-টাঙ্গাইল দুই ঘণ্টার পথ পাড়ি দিতে সময় লাগছে ৬-৭ ঘণ্টা।
এর আগে গতকাল শুক্রবার দুপুর থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপাড়ে প্রায় ৪০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে গাড়ি আটকে ছিল। পরে বিকেলের দিকে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। তবে রাতে আবার ধীরগতি নেমে আসে মহাসড়কে। 
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com