রোববার,  ১৮ আগস্ট ২০১৯  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ২৪ জুন ২০১৬, ২২:৩৬:৫২

গাজীপুরে নবম শ্রেণির ছাত্রের ধর্ষণে কাজের মেয়ে ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা!

গাজীপুর প্রতিনিধি
কালীগঞ্জে বাড়িতে কাজের জন্য ডেকে নিয়ে এক মেয়েকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ধর্ষণ করেছে রাসেল নামে নবম শ্রেণির এক ছাত্র। এতে ওই কাজের মেয়ে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে তার স্থান হয়েছে জাতীয় মহিলা আশ্রয় কেন্দ্রে (সেল্টার হোম)।
 
অভিযোগ ও থানা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মোক্তারপুর ইউনিয়নের বড়হরা গ্রামের প্রবাসী আক্তার হোসেনের ছেলে রাসেল তার নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। কাপাসিয়া এলাকার ভাকোয়াদী গ্রামের মৃত মুছলেউদ্দিনের স্ত্রী ও তার মেয়ে অভাবের তারণায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানের কাজ করত। সেই সূত্রে মেয়েকে কাজের কথা বলে বাড়িতে এনে লম্পট রাসেল তাকে কৌশলে আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।
 
পরে ওই মেয়ে ঘটনাটি মাকেসহ লোকদের জানাবে বললে কৌশলে ওই লম্পট তাকে বিয়ে করার আশ্বাস দেয়। পরে বিয়ের প্রলোভনে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে। নোয়াপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র রাসেলকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে বিভিন্ন তাল-বাহানা করতে থাকে এবং তাকে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগও রয়েছে।
 
এদিকে রাসেলের অবিভাবকের নিকট বিচার দিলে তারা বলে প্রয়োজনে পাঁচ লাখ টাকা খরচ করবো তবু ওই মেয়েকে এ বাড়ির বউ হিসেবে গ্রহণ করবো না। বিচারের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুড়ে কোনো প্রতিকার না পেয়ে ২০ মে কালীগঞ্জ থানায় মামলা করতে যায় ওই ঘটনায় শিকার কাজের মেয়ে।
 
আসামি পক্ষ প্রভাবশালী থাকায় তৎকালীন এসি মোস্তাফিজুর রহমান মামলাটি আমলে নেয়নি। পরে ধর্ষিতা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে গাজীপুর বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করেন। বর্তমানে ওই নির্যাতিতা জাতীয় মহিলা আশ্রয় (সেল্টার হোম) কেন্দ্রে রয়েছে।
 
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com