শুক্রবার,  ২৩ আগস্ট ২০১৯  | সময় লোডিং...
প্রকাশ : ০৭ জানুয়ারি ২০১৬, ১০:৪০:৩৮

দিনাজপুরে মন্দিরে হামলা: একজনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

দিনাজপুর প্রতিবেদক
জেলার কাহারোলে ইসকন মন্দিরে গুলি-বোমা হামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে আটক করা হয়। এদের মধ্যে আব্দুর রহমান বাদশা নামে একজন হামলার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।
আটক দুজন হলেন সারোয়ার হোসেন সাবু (৩৩) ও আব্দুর রহমান বাদশা (২০)। সাবু জেলার বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের ভাইগড় সাগরপুর গ্রামের বুধা মণ্ডলের ছেলে। বাদশা কাহারোল উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের বলেয়া গ্রামের মো. নুরুল ইসলামের ছেলে।
বুধবার বিকেলে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো. নাজমুল হাসানের আদালতে আব্দুর রহমান বাদশা ইসকন মন্দিরে গুলি-বোমা হামলায় জড়িত থাকার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।
চাঞ্চল্যকর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এসআই বজলুর রশিদ জানান, রোববার রাতে বিরামপুর থেকে সাবু ও বাদশাকে আটক করা হয়। পরে আদালতের নির্দেশে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়। রিমান্ড শেষে বুধবার বিকেলে মো. আব্দুর রহমান বাদশা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। যাতে তিনি ইসকন মন্দিরে গুলি-বোমা হামলায় চালানোর ঘটনায় সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। আদালত তাদের দুইজনকে ইতালীয় নাগরিক ডা. পিয়েরো পারলারিকে গুলি করে হত্যা চেষ্টায় বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আরও ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।
ডিবি ওসি রেদওয়ান রহিম জানিয়েছেন, আটকদের জিজ্ঞাসাবাদের চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রদান বেরিয়ে আসছে। তথ্য যাচাই-বাচাই পুর্বক পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।
প্রসঙ্গত, দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার ডাবোর ইউনিয়নের জয়নন্দ ডহচি গ্রাম ইসকন মন্দিরে ধর্মসভা চলাকালীন সময়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৮টার দিকে গুলি ও বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ২ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। ইসকন মন্দিরে গুলি-বোমা হামলায় চালিয়ে পালিয়ে যাবার সময় জনতার আটক শরিফুল ইসলাম আটক করে। পরে দিন অস্ত্র ও গুলিসহ মোছাদ্দের আলম খন্দকারকে আটক করা হয়।
এই পাতার আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদসর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Powered by orangebd.com